সোনালী ব্যাংক লোন ব্যবস্থা সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য জানুন |

সোনালী ব্যাংকের একজন রেগুলার গ্রাহক হিসেবে সোনালী ব্যাংক লোন নেয়ার ইচ্ছা পোষণ করলে তা কিভাবে নিবেন সে সম্পর্কে জানা দরকার।

অর্থাৎ আপনি যদি সোনালী ব্যাংকের অধীনে বিভিন্ন মেয়াদের জন্য কিংবা বিভিন্ন সেক্টরের জন্য লোন নিতে চান তাহলে কি রকম শর্ত প্রযোজ্য হবে সে সম্পর্কে জানা প্রয়োজন।

আর আজকের এই আর্টিকেলের মূলত আলোচনা করা হবে সোনালী ব্যাংক লোন নেয়ার যেসমস্ত সেক্টর এবং যত টাকার পরিমাণ রয়েছে সেগুলো সম্পর্কে।

সোনালী ব্যাংক লোন এর প্রকারভেদ

সোনালী ব্যাংক থেকে আপনি চাইলে দুইটি ভিন্ন উপায়ে লোন নিতে পারবেন এর মধ্যে থেকে একটি হল পার্সোনাল লোন আর অন্যটি হলো শিক্ষক এবং অন্যান্য পেশাজীবীদের জন্য।

পার্সোনাল লোন নেয়ার মাধ্যমে আপনি চাইলে বড় অংকের এমাউন্ট নিতে পারবেন এবং শিক্ষক এবং অন্যান্য পেশাজীবীদের জন্য যে লোন রয়েছে সেটি স্বল্প ঋণের মধ্যে নেয়া সম্ভব।

তাহলে দেখে নিন এই দুইটি ভিন্ন সেক্টরে লোন নেয়ার যে কি প্রয়োজন বা কারা এই লোন নিতে পারবে এবং লোন নিতে হলে কত টাকা অব্দি নেয়া সম্ভব।

সোনালী ব্যাংক পার্সোনাল লোন

সোনালী ব্যাংক থেকে সর্বোচ্চ পরিমাণ লোন নেয়ার জন্য আপনি চাইলে সোনালী ব্যাংকে যে পার্সোনাল লোন সেবা রয়েছে সে নিতে পারেন।

এই লোন নেয়ার মাধ্যমে আপনি যে সমস্ত টাকা পাবেন সেই টাকাগুলো আপনার ব্যবসায় কার্যক্রমে কিংবা অন্য যে কোন প্রফিটেবল খাতে ব্যবহার করতে।

মূলত সোনালী ব্যাংকের যে পার্সোনাল লোন সভা রয়েছে সেটিকে ছোট এবং বড় এন্টারপ্রাইজ লোন বলা হয়। তাহলে দেখে নিন এই লোন নেয়ার উপায় এবং কত টাকা নিতে পারবেন সেই সম্পর্কে।

লোন এর লিমিট

  • যেকোনো ব্যক্তি কমপক্ষে ৫০ হাজার টাকা থেকে ৫ কোটি টাকা অব্দি লোন নিতে পারবে।
  • লোন নেয়ার জন্য বয়সসীমা অবশ্যই ১৮ বছরের হতে হবে এবং যে ব্যক্তি লোন নিয়ে বাংলাদেশী নাগরিক হতে হবে।
  • যে ব্যক্তি লোন এর অপব্যবহার করে লোন পরিশোধের সময় এবং মানসিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি এই লোন নিতে পারবে না।
  • নারী উদ্যোক্তা হলে খুব বেশি পরিমাণে সফলতা পেলে লোন নিতে পারবে।

সিকিউরিটি

  1. পুরুষ উদ্যোক্তার জন্য লোন এর সিকিউরিটি বাবদ ৫ লক্ষ টাকা দেয়া লাগতে পারে।
  2. এবং নারী উদ্যোক্তা হলেন সিকিউরিটি ফি বাবদ ১০ লক্ষ টাকা গুনা লাগতে পারে।

সময়সীমা

  1. যে ব্যক্তি এই লোন সেবা উপভোগ করবে সে ব্যক্তি কে সর্বোচ্চ ৫ বছরের মধ্যে লোন পরিশোধ করতে হবে।
  2. লোন চলাকালীন সময়ে যে কোন ব্যক্তি মাসিক কিস্তিতে লোন পরিশোধ করতে পারবে।

মূলত উপরে উল্লেখিত টাকার অনুপাত এবং ঋণ পরিশোধের সময় মাফিক একজন ব্যক্তি সোনালী ব্যাংক থেকে লোন নিতে পারবে।

শিক্ষক এবং চাকরিজীবীদের জন্য লোন

আপনি যদি স্বল্প বেতনে চাকরিজীবী হয়ে থাকেন কিংবা শিক্ষক হয়ে দেখেন তাহলে সোনালী ব্যাংকের অধীনে স্বল্প বেতনের ঋণ নিতে পারবেন।

মূলত এই ঋণ প্রকল্প সমস্ত ব্যক্তিদের জন্য যারা স্বল্প বেতনের চাকরি করে থাকে। তাহলে দেখে নিন এই সমস্ত স্বল্প ঋণ নেয়ার রিকোয়ারমেন্ট গুলো কি কি।

ঋণের সীমা

  • যেকোনো ব্যক্তি কমপক্ষে ২০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা ঋণ নিতে পারবে।
  • মার্জিন হলো ঋণসীমার ২০ শতাংশ।
  • ১২ মাস থেকে ৩৬ মাসের মধ্যে ঋণ পরিশোধ যোগ্য।
  • ১২% সুদহারে টাকা পরিশোধ করা লাগবে।

এছাড়াও এ ঋণের খাত হিসেবে অনেকগুলো খাত বিবেচনা করা হয়। সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়ার জন্য নিম্নলিখিত লিংক এ ক্লিক করুন।

সম্পর্কে আরও তথ্য

 

উপরে উল্লেখিত লিংকে ভিজিট করার মাধ্যমে আপনি সোনালী ব্যাংকে যে ক্ষুদ্রঋণ প্রকল্প রয়েছে সে সম্পর্কে পরিপূর্ণ ধারণা নিতে পারবেন।

20 thoughts on “সোনালী ব্যাংক লোন ব্যবস্থা সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য জানুন |”

    1. আপনি যদি এই লোন সেবা নিতে চান তাহলে দয়া করে আপনার আশেপাশে থাকা সোনালী ব্যাংকের যে কোন শাখায় যোগাযোগ করতে পারেন!

    2. আমি একটা এন জিও তে চাকুরী আমার মাসিক সেলারী 17500আমি কি এক লক্ষ টাকা ঋন পাবো 3 বছর মেয়াদি

  1. Rasel Sikder

    আমি ১০ম গ্রেডের একজন সরকারী চাকুরীজীবি আমি বাড়ি তৈরীর জন্য ১০ লক্ষ টাকা ঋণ নিতে চাই।আমার বেতন বিল সোনালী ব্যাংকে হয়।সল্প সুদে কি ভাবে নিতে পারবো???

  2. আমার ফার্নিচারের বেপসা করি আমি বেপসাটা আরো বড় করতে চাই ! আমার ৫ লাক্ষ টাকা লোন দরকার

  3. আমি ফলের বাগান করেছি আমার ৬০০০০ টাকা লাগে,,,,আমি সোনালী ব্যাংক থেকে কিভাবে ঋণ নিবো??

    1. আপনার আশেপাশে থাকা সোনালী ব্যাংকের যেকোন ব্রান্ঞ্চে যোগাযোগ করুন।

  4. মোঃ উজ্জল

    আমি দেশের বাহিরে থাকি।মালয়েশিয়ান প্রবাসী। সোনালী ব্যাংকে আমার সেভিংস একাউন্ট আর একটা ডিপি এস করা আছে

    আমি কি সেখান থেকে লোন নিতে পারি। আর কিভাবে এপলাই করতে পারি জানাবন প্লিজ

    1. আপনি সশরীরের আসতে না পারলে, একজন গ্যারান্টার নির্বাচন করুন অথবা সব তথ্যের সহায়তায় দ্বিতীয় একজনকে ব্যাংকে পাটিয়ে লোন নেয়ার ব্যপারে প্রথম ধাপ এগিয়ে যান!

  5. Rosen Adrash

    আমি অনলাইন বিজনেস করতে চাই কিন্তু আমার কাছে ক্যাস টাকা নেই। ১০ হাজার টাকা হলেই আমার ব্যবসা শুরু করা যাবে। আমি অনার্সে অধ্যায়নরত স্টুডেন্ট। আমাকে কি লোন দেওয়া হবে?

    1. আপনার আশেপাশে থাকা ব্যাংকের যেকোন শাখায় এ ব্যপারে বিস্তারিত আলোচনা করতে পারেন!

    1. আপনার আশেপাশে থাকা ব্যাংকের যেকোন শাখায় বা ব্রান্ঞ্চে যোগাযোগ করলে এ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে পারবেন!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top