প্রিমিয়ার ব্যাংক ডিপিএস অ্যাকাউন্ট – Premier Bank DPS

প্রিমিয়ার ব্যাংকের অধীনে আপনি যদি একটি ডিপিএস কিংবা সঞ্চয় অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান, তাহলে সেই অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পূর্বে প্রিমিয়ার ব্যাংক ডিপিএস রেট সম্পর্কে অবগত হওয়ার দরকার আছে।

প্রিমিয়ার ব্যাংক ডিপিএস রেট এর আদ্যোপান্ত সম্পর্কে আজকের এই আর্টিকেলে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হবে। তাহলে আর দেরি না করে এখনই শুরু করা যাক।

প্রিমিয়ার ব্যাংক ডিপিএস মেয়াদ

আপনি যদি প্রিমিয়ার ব্যাংক ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান, তাহলে আপনি চাইলে বিভিন্ন মেয়াদের জন্য এই ব্যাংকে ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে সক্ষম হবেন।

অর্থাৎ আপনি চাইলে সর্বনিম্ন ১ বছর থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ১২ বছর মেয়াদী একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

এবার এই মেয়াদ সীমার মধ্যে থেকে যে কোন একটি মেয়াদে আপনি চাইলে ডিপোজিট একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন, এবং টাকা সঞ্চয় করতে পারবেন।

প্রিমিয়ার ব্যাংক ডিপোজিট মাসিক স্কিম

প্রিমিয়ার ব্যাংকের যে ডিপোজিট মাসিক স্কিম রয়েছে, সেটি সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে নিচে তুলে ধরা হলো।

সময়সীমা

টাকার পরিমান

ইন্টারেস্ট রেট

মেয়াদ শেষে পাবেন

তিন বছর

Tk. 500.00

@ 6.75%

19,864.68

পাঁচ বছর

Tk. 500.00

@ 6.75%

35,575.49

10 বছর

Tk. 500.00

@ 7.00%

86,009.44

12 বছর

Tk. 500.00

@ 7.00%

111,358.27

কারা একাউন্ট তৈরি করতে পারবে?

বাংলাদেশী নাগরিক, যাদের বয়স ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে।

ডিপোজিট একাউন্ট এর কিছু ফিচারস

  • আপনি যদি এই ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট তৈরি করেন, তা হলে প্রথমত কোনরকমে টাকা দিতে হবে না। অর্থাৎ ইনিশিয়াল ইনস্টলমেন্ট হিসেবে কোন টাকা দিতে হয় না।
  • প্রতিমাসে আপনি চাইলে টাকা জমা রাখতে পারবেন। সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে।
  • সর্বনিম্ন ৩ বছর থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ১২ বছর অব্দি অ্যাকাউন্ট তৈরি করা সম্ভব।
  • এছাড়াও অটোমেটিকলি ইনস্টলমেন্ট ট্রান্সফার হয়ে যাবে।
  • একজন কাস্টোমার চাইলে একের অধিক একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

প্রিমিয়ার ব্যাংক ডিপিএস অ্যাকাউন্ট কাগজপত্র

আপনি যদি ডিপিএস অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান, তাহলে যে সমস্ত কাগজপত্র এর প্রয়োজন হবে সেগুলো সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলো।

  • যে ব্যক্তি অ্যাকাউন্ট তৈরি করবে সেই ব্যক্তির ভোটার আইডি কার্ড পাসপোর্ট কিংবা যেকোন রকমের রকমের আইডেন্টিফিকেশন কার্ড। – (নমিনির ক্ষেত্রেও তাই)
  • এছাড়াও একাউন্ট হোল্ডার এর দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি প্রয়োজন হবে। – (নমিনির ক্ষেত্রেও তাই)
  • ই টিন সার্টিফিকেট। সর্বশেষ মান্থলি স্টেটমেন্ট। অর্থাৎ সর্বশেষ আয় এর রশিদ।
  • ইউটিলিটি বিল রশিদ।

প্রিমিয়ার ব্যাংক ডিপোজিট একাউন্ট কিভাবে তৈরি করবেন?

আপনি যদি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান, তাহলে আপনাকে প্রথমত উপরে উল্লেখিত ইনফরমেশন গুলো কালেক্ট করে নিতে হবে অর্থাৎ অ্যাকাউন্ট এর যে সমস্ত কাগজপত্র রয়েছে সেগুলো সাথে রাখতে হবে।

কাগজপত্র সংগ্রহ করা সম্পন্ন হয়ে গেলে, এবার আপনাকে অ্যাকাউন্ট তৈরি করার জন্য একাউন্ট অপেনিং ফর্ম রয়েছে, সেটি ডাউনলোড করে ফিলাপ করে নিতে হবে।

ডাউনলোড একাউন্ট অপেনিং ফর্ম

 

তবে আপনি যখনই কাগজপত্র নিয়ে ব্যাংকে চলে যাবেন, তখন তারা আপনাকে নিজে থেকে একটি একাউন্ট অপেনিং ফর্ম দিবে। সেটি ফিলাপ করে নিলে কাজটি হয়ে যাবে।

তবে আপনি চাইলে পূর্বে থেকে একাউন্ট অপেনিং ফর্ম টি ফিলাপ করে নিতে পারেন।

এছাড়াও আপনি চাইলে সরাসরি নিচে থেকে এপ্লাই করে দিতে পারবেন।

Apply Now

প্রিমিয়ারব্যাংক ডিপিএস অ্যাকাউন্ট রিলেটেড যে সমস্ত তথ্য আপনাকে জানিয়ে দেয়া প্রয়োজন ছিল, সেগুলো সম্পর্কে উপরে আলোচনা করা হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top