ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন ঘরে বসে

ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন ঘরে বসে

ঘরে বসে ডাচ বাংলা ব্যাংকের সমস্ত কাজ সম্পাদনের জন্য ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং আপনার জন্য এক অনন্য সহযোগী।

Dutch-Bangla Bank Mobile Banking এর মাধ্যমে এই ব্যাংক রিলেটেড বিভিন্ন রকমের সুযোগ-সুবিধা কিংবা সেবা ঘরে বসেই উপভোগ করা সম্ভব।

কারণ ডাচ বাংলা ব্যাংকের বিশাল গ্রাহকের মধ্যে কোন একটি সেবা নিতে চান, তাহলে অনেক রকমের অসুবিধার মধ্যে পড়তে হবে।
যার মধ্যে সবচেয়ে ছোট অসুবিধা হলো লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা।

এছাড়াও আপনার অন্যান্য ব্যাংকিং কার্যক্রম সম্পাদনের জন্য প্রতিদিন ব্যাংকে যাওয়া আসার ক্ষেত্রে নানা রকমের জটিলতা দেখা দিতে পারে, তবে এই কাজগুলো সহজে ঘরে বসে করতে পারবেন Dutch-Bangla Bank মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে।

ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং কি?

মূলত ঘরে বসেই যদি যে কেউ ডাচ বাংলা ব্যাংকের সমস্ত কার্যক্রম সম্পাদন করতে চান তাহলে Dutch-Bangla Bank মোবাইল ব্যাংকিং সেবা রয়েছে, সেটির সহায়তা নিতে পারেন।

এই মোবাইল ব্যাংকিং সেবা এক্টিভেট করার মাধ্যমে যে কোনো গ্রাহক ঘরে বসে চাইলে ব্যাংকিং এর সমস্ত ক্রিটিক্যাল বিষয়ের সমাধান করতে পারবে।

এছাড়াও যে কোনো গ্রাহক যদি মোবাইল ব্যাংকিং রেজিস্ট্রেশন করে নেয়, তাহলে যে সমস্ত সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারবে সেগুলো হলো।

  • নতুন গ্রাহক নিবন্ধন।
  • টাকা জমা দেয়া ।
  • টাকা উত্তোলন করা।
  • ব্যালেন্স স্টেটমেন্ট দেখা ।
  • বয়স্ক ভাতা কালেক্ট করা।
  • যে কোন প্রতিষ্ঠান বিল পরিশোধ করা।
  • ইউটিলিটি বিল পরিশোধ করা।
  • বিদেশ থেকে প্রেরিত অর্থ যে কোন কাজে ব্যবহার করা।
  • তাৎক্ষণিক মোবাইল রিচার্জ ইত্যাদি।

একজন মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহক হিসেবে উপরুক্ত কাজগুলো ঘরে বসে খুব সহজেই করা সম্ভব। যা যেকোরো সময় বহুলাংশে বাঁচাতে সহায়তা করবে।

মোবাইল ব্যাংকিং সম্পর্কে এত বেশি তথ্য জেনে নেয়ার পরে আবার নিশ্চয়ই জানতে চান কিভাবে মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলা যায়?

কিভাবে রেজিস্টার করবেন ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং

মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট রেজিস্টার করার জন্য প্রথমে ডাচ বাংলা ব্যাংকের নিকটস্থ যেকোনো একটি ব্রাঞ্চ কিংবা শাখায় যোগাযোগ করতে হবে।

যখনই আপনি যে কোন শাখার মধ্যে উপস্থিত হবেন, তখন ওই শাখা থেকে নির্ধারিত আপনাকে একটা KYC রেজিস্ট্রেশন ফরম দিবে; এই ফরমটি যথাযথভাবে ফিলাপ করতে হবে।

KYC রেজিস্ট্রেশন ফরম যথাযথভাবে ফিলাপ করার পরে যে সমস্ত ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হবে সেগুলি হল।

  • বৈধ জাতীয় পরিচয় পত্রের ছবি।
  • আপনার এক কপি রঙ্গিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  • এবং তারপরে যে নাম্বার দিয়ে মোবাইল ব্যাংকিং খুলতে যাচ্ছেন সেই নাম্বার প্রোভাইড করতে হবে।
  • তাহলেই গ্রাহকের নিবন্ধন সম্পন্ন হবে এবং IVR কর্তৃক একটি মোবাইল মেন্যু দেখতে পারবে।
  • মোবাইল মেন্যু যখন আপনি পেয়ে যাবেন, তখন চার ডিজিটের একটি পিন নাম্বার দিতে হবে। এই পিন নাম্বার মনে রাখা আবশ্যক।

একটি বিষয় লক্ষ্য করবেন আর সেটা হল একাউন্ট তৈরিকৃত পিন নাম্বার কারো সাথে কখনোই শেয়ার করবেন না। যদি করেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট ঝুঁকির মধ্যে থাকবে।

আর এভাবেই একটি মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট তৈরি করা সম্ভব। আর ডাচ বাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট রকেট একাউন্ট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।

নিজে নিজে কিভাবে মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খুলবেন?

বর্তমানে কোন রকমের এজেন্ট এর শরণাপন্ন না হয়ে ঘরে বসেই আপনি চাইলে ডাচ বাংলা ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট করতে পারবেন।

ঘরে বসেই মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট তৈরি করার জন্য যে সমস্ত রিকোয়ারমেন্ট এর প্রয়োজন হবে সে সমস্ত রিকোয়ারমেন্ট হলোঃ

  1. একটি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস কিংবা অন্যান্য স্মার্টফোন।
  2. ইন্টারনেট কানেকশন।
  3. রকেট অ্যাপ সাপোর্টেড।

যখনই উপরে উল্লেখিত রিকোয়ারমেন্ট আপনার সাথে মিলে যাবে, তখন আপনি ঘরে বসেই মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

ঘরে বসে মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট তৈরি করার জন্য যে সমস্ত প্রসেস ফলো করা দরকার সেগুলো সম্পর্কে জেনে নিতে চাইলে নিম্নলিখিত আর্টিকেলটি পড়ে আসুন।

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

আশাকরি ডাচ বাংলা ব্যাংক সংক্রান্ত যে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা হয়েছে, সেই সম্পর্কে পুরোপুরি জেনে নিতে পেরেছেন এবং এবার আপনি মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহক হতে পেরেছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top