সোনালী ব্যাংক সঞ্চয় পত্র সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন

আপনি যদি সোনালী ব্যাংকের একজন গ্রাহক হয়ে থাকেন, তাহলে সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্র যে সমস্ত নিয়মকানুন রয়েছে, সেগুলো সম্পর্কে জেনে নেয়ার দরকার রয়েছে।

অর্থাৎ এই ব্যাংকে আপনি যদি টাকা সঞ্চয় করতে চান, তাহলে টাকা সঞ্চয় করার ক্ষেত্রে আপনাকে যে সমস্ত নিয়মকানুন মেনে চলতে হবে, সে সম্পর্কে জেনে নেয়ার দরকার আছে।

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয় পত্র সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে চাইলে এই আর্টিকেলটি দেখে নিতে পারেন।

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয় পত্র করতে কি কি লাগে?

আপনি যদি সোনালী ব্যাংক একটি ডিপিএস অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান, তাহলে এই অ্যাকাউন্ট তৈরি করার জন্য যে সমস্ত ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হবে , সেগুলো সম্পর্কে নিচে আলোকপাত করা হলো।

  • অবশ্যই সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট থাকতে হবে।
  • অ্যাকাউন্ট তৈরি করার ফরম।
  • যে ব্যক্তি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চায় সেই ব্যক্তি দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি এবং জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।
  • যাকে নমিনি হিসেবে নির্বাচন করা হবে সেই ব্যক্তির পাসপোর্ট সাইজের ছবি এবং এনআইডি কার্ডের ফটো কপি।
  • এছাড়াও e-tin সার্টিফিকেট থাকলে সেটি তাদেরকে দিতে হবে।

উপরে উল্লেখিত কাগজপত্র আপনার কাছে থাকলেই আপনি একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন।

একাউন্টে সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন কত টাকা জমা রাখা যাবে?

আপনি যদি একটি সঞ্চয় পত্র অ্যাকাউন্ট তৈরি করেন, তাহলে সে অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পরে সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন কত টাকা জমা রাখা যাবে?

এ ক্ষেত্রে ভিন্ন ব্যাংকে ভিন্ন রকমের ডিপোজিট করা সম্ভব। তবে সোনালী ব্যাংকে আপনি চাইলে নিম্নলিখিত অ্যামাউন্ট এ ডিপোজিট করতে পারবেন।

এই ব্যাংকে আপনি প্রতি মাসে সর্বনিম্ন ১১৫৫ টাকা জমা রাখতে পারবেন৷

এছাড়াও আপনি চাইলে সর্বোচ্চ ২৩৪০০ টাকা জমা রাখতে পারেন৷ আলোচনা সাপেক্ষে এটি বৃদ্ধি করা যেতে পারে।

অ্যাকাউন্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে আপনি চাইলে সর্বনিম্ন ৩ বছর মেয়াদী অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন এবং সর্বোচ্চ ২০ বছর মেয়াদি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

তবে, আপনার প্রয়োজন অনুসারে একটি ২৫০ টাকা ফি দিয়ে যেকোনো সময় আপনার সঞ্চয় পত্র অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে নিতে পারবেন।

আপনি যদি কোনো কারণে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা সঞ্চয় করতে ব্যর্থ হন, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে।

অর্থাৎ, অ্যাকাউন্ট জমা করে রাখার জন্য আপনি যে দিন ধার্য করেছেন, সেই দিনের মধ্যে আপনি যদি একটানা ২ মাস জমা রাখতে না পারেন, বা টাকা জমা দিতে ব্যর্থ হন, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিতে পারে।

এছাড়াও সোনালী ব্যাংক ডিপিএস রেট যে সমস্ত তথ্য রয়েছে সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আপনি যদি জেনে নিতে চান, তাহলে নিম্নলিখিত আর্টিকেলটি দেখে নিতে পারেন।

জেনে নিনঃ সোনালী ব্যাংক ডিপিএস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

উপরে উল্লেখিত আর্টিকেলটি দেখে নিলে সোনালী ব্যাংক ডিপিএস এর যে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য রয়েছে, সেগুলো সম্পর্কে আপনি অবগত হতে পারবেন।

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্র কি এবং সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্র রিলেটেড বিস্তারিত  আলোচনা করা হলো।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top